Main Menu

শুক্রবার, অগাস্ট ১৩th, ২০২১

 

COVID rules could be ‘catalyst’ for domestic ‘terrorists’: US | Coronavirus pandemic News

Department of Homeland Security issues new advisory identifying threats posed by groups engaged in ‘grievance-base violence’. The United States Department of Homeland Security (DHS) on Friday warned of a “heightened” domestic threat from violent “extremists” motivated by new COVID-19 restrictions as well as by anti-government ideology being shared online. “These extremists may seek to exploit the emergence of COVID-19 variants by viewing the potential re-establishment of public health restrictions across the United States as a rationale to conduct attacks,” the DHS bulletin said. “Pandemic-related stressors have contributed to increased societalআরও পড়ুন


‘করোনা মোকাবিলায় জাতীয় ঐক্যমত্যের মাধ্যমে সর্বদলীয় কমিটি জরুরি’

করোনা মোকাবিলায় সরকারের লকডাউন ছিল অপরিকল্পিত। ছিল সমন্বয়হীনতা ও সিদ্ধান্তহীনতা। আর গার্মেন্টস কারখানাগুলো খুলে দিয়ে সরকার স্পষ্টভাবে প্রমাণ করেছে সরকার ধনীদের পক্ষে আর গরিবদের বিপক্ষে। রেডিও তেহরানকে দেয়া বিশেষ সাক্ষাৎকারে এসব কথা বলেছেন,বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টির(ন্যাপ) সেক্রেটারি জেনারেল এম গোলাম মোস্তফা ভুঁইয়া। সাক্ষাৎকারটি গ্রহণ, উপস্থাপনা ও তৈরি করেছেন গাজী আবদুর রশীদ। রেডিও তেহরান: জনাব এম গোলাম মোস্তফা ভুঁইয়া, করোনার বাড় বাড়ন্ত। মৃত্যু সংক্রমণ দুটোই বেড়েছে। লকডাউনে “রাস্তায় গাড়ির চাপ, চেকপোস্টে হিমশিম অবস্থা ছিল পুলিশের। বাংলাদেশের মিডিয়ার খবর। কোনো কোনো খবরে এমন লেখা হয়েছে, শেষের আগেই শেষ কঠোর বিধিনিষেধ শেষ হয়েছিল।আরও পড়ুন


كاليفورنيا.. السلطات تأمر بإجلاء المزيد من السكان بسبب استمرار الحرائق

أصدرت السلطات في ولاية كاليفورنيا الأميركية أوامر بإجلاء المزيد من السكان من مناطق في أقصى شمال الولاية بسبب استمرار حرائق الغابات في التوسع والانتشار. Source link


একক দেশ হিসেবে যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশের বৃহত্তম রপ্তানি বাজার- রাষ্ট্রদূত এম সহিদুল ইসলাম

যুক্তরাষ্ট্র-বাংলাদেশ সম্পর্ক, রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন, এবং ১৫ই আগস্ট, বাংলাদেশের জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ দূতাবাসের নেয়া কর্মসূচীসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে ভয়েস অফ আমেরিকার সাথে সম্প্রতি কথা বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এম সহিদুল ইসলাম। ভয়েস অফ আমেরিকার পক্ষ থেকে সাক্ষাতকারটি নিয়েছেন শতরূপা বড়ুয়া। ​ ভয়েস অফ আমেরিকাঃ রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে প্রত্যাবর্তনের ব্যাপারটি এখন কোন পর্যায়ে আছে? রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফিরিয়ে নেয়ার ব্যাপারে মিয়ানমারের সরকারকে রাজি করানোর জন্য আপনারা কী কী পদক্ষেপ নিচ্ছেন? রাষ্ট্রদূত: মিয়ানমারের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় চুক্তির আলোকে ২০১৯ সালে দুদফায় রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের উদ্যোগ নেয়া হলেও মিয়ানমার কর্তৃপক্ষ রাখাইন রাজ্যে প্রত্যাবাসনের উপযুক্ত ব্যবস্থাআরও পড়ুন


গুম হওয়া ব্যক্তিদের পরিণতি নিয়ে জাতিসংঘের চিঠির জবাব দেবে বাংলাদেশ

বাংলাদেশে বিভিন্ন সময়ে গুম হওয়া ব্যক্তিদের অবস্থান ও পরিণতি জানতে চেয়ে জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিলের চিঠির জবাব দেবে বাংলাদেশ। পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এম এ মোমেন ভয়েস অব আমেরিকাকে বলেন, আমরা কোনো কিছু হাইড করি না, করব না। অবশ্যই জবাব দেব। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে চিঠি পাঠিয়েছি। উত্তর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে জাতিসংঘে জবাব পাঠানো হবে। তিনি বলেন, এ ধরনের কোনো চিঠির জবাব ভারত, পাকিস্তান, থাইল্যান্ড দেয় না। মিয়ানমার পাত্তাও দেয় না। আমরা সজাগ আছি বলে উত্তর দিই। আর উত্তর দিই বলে তারা আমাদের ওপর ভর করে। যারা জবাব দেয় না তাদের কিছু বলে না। Foreignআরও পড়ুন