Main Menu

মঙ্গলবার, এপ্রিল ২৭th, ২০২১

 

ইরান সমর্থিত রকেট আক্রমণের আশংকায় ইরাকি কুর্দিরা

ইসলামিক স্টেট সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিল যে ইরাকি কুর্দিরা, তারা এখন ইরান সমর্থিত শিয়া মিলিশিয়াদের কাছ থেকে নতুন এক হুমকির ব্যাপারে উদ্বিগ্ন। স্বায়ত্তশাসিত কুর্দিস্তান অঞ্চলে যুক্তরাষ্ট্র এবং বিদেশি সৈন্য যে সব ঘাঁটিতে রয়েছে সেগুলো লক্ষ্য করে সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে অনেকগুলো রকেট এবং ড্রোন আক্রমণ চালানো হয়েছে। এই সব আক্রমণে একজন ঠিকাদার এবং একজন তুর্কি সৈন্য নিহত হয়েছে এবং আরও অনেকে আহত হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তর এক বিবৃতিতে জানিয়েছে যে পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন গত সপ্তায় কু্র্দিস্তান আঞ্চলিক সরকারের প্রধানমন্ত্রী মাসরুর বারজানিকে টেলিফোন করে,“ইরাক এবং ইরাকি কুর্দিস্তান অঞ্চলের স্থিতিশীলতা”সম্পর্কেআরও পড়ুন


করোনা টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন পৌনে ২৬ লক্ষাধিক মানুষ

দেশে এ পর্যন্ত পৌনে ২৬ লক্ষাধিক মানুষ করোনা টিকার দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণ করেছেন। টিকার এই ডোজ গ্রহণকারীর সংখ্যা ২৫ লাখ ৭৯ হাজার ৮৪। এরমধ্যে পুরুষ ১৬ লাখ ৮১ হাজার ৭৯৯ এবং নারী ৮ লাখ ৯৭ হাজার ২৮৫ জন। এদিকে টিকার প্রথম ডোজ গ্রহণ করেছেন ৫৮ লাখ ১৯ হাজার ৬১৬ জন। এরমধ্যে ৩৬ লাখ ৮ হাজার ৭৪৬ জন পুরুষ এবং নারী ২২ লাখ ১০ হাজার ৮৭০। এ ছাড়া আজ বিকেল সাড়ে ৫টা পর্যন্ত ৭২ লাখ ৪০ হাজার ৮২ জন মানুষ টিকার জন্য নিবন্ধন করেছেন বলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক অধ্যাপক ডা. মিজানুরআরও পড়ুন


ইবিতে আম পাড়ায় শিক্ষার্থীকে থাপ্পড়, সহকারী প্রক্টরকে অব্যাহতি

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি: কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসের গাছ থেকে আম পাড়ায় এক শিক্ষার্থীকে থাপ্পড় মারার অভিযোগে ইবির সহকারী প্রক্টর আরিফুল ইসলামকে তার দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রশাসন। মঙ্গলবার দুপুরে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. শেখ আবদুস সালাম ঐ শিক্ষককে সহকারী প্রক্টরের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্টার (ভারপ্রাপ্ত) আতাউর রহমান বিষয়টি যমুনা নিউজকে নিশ্চিত করে বলেন, ‘ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীর লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে উপাচার্য মহোদয় ঐ শিক্ষককে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দিয়েছেন।’ এর আগে শুক্রবার (২৩ এপ্রিল) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাববিজ্ঞান ও তথ্যপদ্ধতি বিভাগের স্নাতকোত্তরের এক শিক্ষার্থী তার স্ত্রীকে নিয়ে ক্যাম্পাসে ঘুরতে এসে গাছআরও পড়ুন


বিজিএমইএ সভাপতির সাথে ইইউ রাষ্ট্রদূতের সৌজন্য সাক্ষাৎ

বাংলাদেশে নিযুক্ত ইইউ’র রাষ্ট্রদূত রেন্সজে তেরিংক আজ মঙ্গলবার (২৭ এপ্রিল) বিজিএমইএ অফিসে সদ্য নির্বাচিত সভাপতি ফারুক হাসান এর সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। সাক্ষাৎকালে তারা বিভিন্ন বানিজ্য সংক্রান্ত বিষয়াবলী বিশেষ করে, পোশাক শিল্পে সাসটেইনিবিলিটি, স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হওয়ার প্রেক্ষিতে ইইউ-বাংলাদেশ অংশীদারিত্ব আরও জোরদারকরন প্রভৃতি নিয়ে আলোচনা করেন।  বিজিএমইএ সভাপতি বলেন, ইউরোপিয়ান বাজার বাংলাদেশের রপ্তানির জন্য সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। ২০২৬ সাল থেকে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পর বাংলাদেশের জন্য সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ হবে ইইউ বাজারে জিএসপি প্লাস এর আওতায় পণ্য রপ্তানির সুবিধা পাওয়া। তিনি এ বিষয়ে ইইউ রাষ্ট্রদূতের সহযোগিতা কামনা করেন। বিজিএমইএআরও পড়ুন


ভারতে আক্রান্তদের দেহে তৈরি হচ্ছে না অ্যান্টিবডি

ছবি: আনন্দবাজার পত্রিকা। বিশ্বব্যাপী করোনার থাবা থেকে ফিরে আসাদের সবারই সুস্থ হওয়ার নিয়ামক হিসেবে কাজ করেছে অ্যান্টিবডি। তবে ভারতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পরেও অনেকের দেহেই গড়ে ওঠেনি স্বাভাবিক রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা। আর এ জন্যই ফিরে আসছে বারবার। সমীক্ষা জানাচ্ছে, সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ের অন্যতম কারণ হল কোভিড-১৯ প্রতিরোধী অ্যান্টিবডির অনুপস্থিতি। আনন্দবাজারের খবরে বলা হয়, ‘কাউন্সিল ফর সায়েন্টিফিক অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিয়াল রিসার্চ’ (সিএসআইআর)-এর মার্চ মাসের ওই সমীক্ষা জানাচ্ছে, মোট ১০,৪২৭ জনের উপর পরীক্ষা চালিয়ে দেখা গিয়েছে অ্যান্টিবডি তৈরি হয়েছে (সেরো পজিটিভিটি) মাত্র ১০.১৪ শতাংশের দেহে। দেশের ১৭টি রাজ্য এবং ২টি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে সিএসআইআর-এরআরও পড়ুন