Main Menu

বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১৭th, ২০২০

 

আমেরিকায় বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের ভয়াবহ চিত্র তুলে ধরেছিলেন ডঃ ডেভিড নেলিন 

১৬ই ডিসেম্বর বাংলাদেশের বিজয় দিবস। দেখতে দেখতে দীর্ঘ ৪৯ বছর কেটে গেল। স্বাধীনতা সংগ্রামে যেমন যোগ দিয়েছিলেন বাঙ্গালীরা প্রাণ দিয়ে ছিলেন লক্ষ লক্ষ বাংলাদেশী, সেই সঙ্গে প্রত্যক্ষ বা পরক্ষভাবে স্বাধীনতা অর্জনে যোগ দিয়ে ছিলেন অনেক বিদেশীরাও। ১৯৭১ সালে তদানীন্তন পূর্ব পাকিস্তানের বিরুদ্ধে এবং পাকিস্তানের পক্ষে যুক্তরাষ্ট্র সরকারের সমর্থনের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়ে ছিলেন কিছু উদারপন্থী আমেরিকান তরুণ। যুক্তরাষ্ট্র কংগ্রেস এবং আমেরিকার জনগণের কাছে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের ভয়াবহ চিত্র এবং নৃশংস হত্যাকাণ্ড তুলে ধরতে আমেরিকান তরুণরা প্রতিষ্ঠা করেছিলেন বাংলাদেশ ইনফর্মেশনাল সেন্টার। তদানীন্তন পূর্ব পাকিস্তানে আমেরিকান কন্স্যুলেটের কর্মকর্তা, কলেরা রিসার্চ ইনিষ্টিটিউটে কর্মরত আমেরিকানআরও পড়ুন


একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধ ছিল জালিমের বিরুদ্ধে মজলুমের প্রতিরোধ

মাইজভাণ্ডার দরবার শরীফের সাজ্জাদানশীন পার্লামেন্ট অব ওয়ার্ল্ড সূফিজের প্রেসিডেন্ট শাহসুফি মাওলানা সাইয়্যিদ সাইফুদ্দীন আহমদ আল্-হাসানী বলেছেন, ৭১ এর মহান মুক্তিযুদ্ধ ছিল জালিমের বিরুদ্ধে মজলুমের প্রতিরোধ। এ দেশের আউলিয়ায়ে কেরাম ও সূফি দর্বেশগণ জালিম পাক হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে মজলুম মুক্তিযোদ্ধাদের সার্বিক সহযোগিতা করেছিলেন। মহান মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন সময়ে মাইজভাণ্ডার শরীফে লাল সবুজের পতাকা উড্ডীন ছিল।  তৎকালীন মাইজভাণ্ডার শরীফের সাজ্জাদানশীন, শায়খুল ইসলাম, হযরত সাইয়্যিদ মইনুদ্দীন আহমদ মাইজভাণ্ডারী (ক.) মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় মুক্তিযোদ্ধাদেরকে আশ্রয়, খাবার ও আর্থিক সহায়তাসহ নানাভাবে পৃষ্ঠপোষকতা করেছিলেন। তিনি যে মুক্তিযুদ্ধের একজন সংগঠক ও পৃষ্ঠপোষক হিসেবে অবদান রেখেছিলেন; এই কথা বীরআরও পড়ুন


আহমদ শফীর মৃত্যুর ঘটনায় মামুনুল হকসহ ৩৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা

হেফাজতের সাবেক আমির শাহ আহমদ শফীর মৃত্যুর ঘটনায় বর্তমান যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হক’সহ ৩৬ জনের নাম উল্লেখ করে চট্টগ্রাম আদালতে মামলা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে তৃতীয় জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা করেন শাহ আহমদ শফীর শ্যালক মোহম্মদ মাইনুদ্দিন। অভিযোগ আমলে নিয়ে এক মাসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে পিবিআই’কে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। মামলায় বলা হয়, মামুনুল হকসহ আরও কয়েকজন জুনায়েদ বাবুনগরীর বাসায় বসে শাহ আহমদ শফীকে হত্যার পরিকল্পনা করেন। পরিকল্পনা অনুযায়ী হাটহাজারী মাদরাসায় তার খাবার ও অক্সিজেনের নল খুলে নেয়া হয়। বাধা দেয়া হয় হাসপাতালে নিতেও। বিনা চিকিৎসায় মারা যান শাহ আহমদআরও পড়ুন


১১ জেলায় নতুন ডিসি নিয়োগ 

নিজস্ব প্রিতবেদক চট্টগ্রাম, নারায়ণগঞ্জসহ দেশের ১১ টি জেলায় নতুন জেলা প্রশাসক (ডিসি) নিয়োগ দিয়েছে সরকার। বৃহস্পতিবার (১৭ ডিসেম্বর) জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে তাদের নিয়োগ দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। কক্সবাজার, নারায়ণগঞ্জ, চট্টগ্রাম, বরগুনা, নড়াইল, বাগেরহাট, চাঁদপুর, লক্ষ্মীপুর, বরিশাল, বান্দরবান ও সুনামগঞ্জ- এই ১১ জেলায় নতুন জেলা প্রশাসক নিয়োগ দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে বাগেরহাটের ডিসি মো. মামুনুর রশিদকে কক্সবাজার এবং বরগুনার ডিসি মুস্তাইন বিল্লাহকে নারায়ণগঞ্জের ডিসি হিসেবে বদলি করা হয়েছে। এছাড়া প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের পরিচালক (উপসচিব) মোহাম্মদ মমিনুর রহমানকে চট্টগ্রাম, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রীর একান্ত সচিব (উপসচিব) হাবিবুর রহমানকে বরগুনা, জননিরাপত্তা বিভাগে সংযুক্ত উপসচিবআরও পড়ুন


প্রচারণার অভাবে অ্যান্টিজেন টেস্ট নিয়ে ধোঁয়াশা

কোভিড রোগী দ্রুত শনাক্তের জন্য অ্যান্টিজেন টেস্ট চালু করা হলেও ধোঁয়াশাতে রয়েছে মানুষ। পর্যাপ্ত প্রচারণার অভাবে গণমানুষ অ্যান্টিজেন টেস্টের বিষয়ে জানতে পারছে না বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বলছে, তাদের অ্যান্টিজেন টেস্ট কিট পর্যাপ্ত রয়েছে, তবে গণমাধ্যমে প্রচারণা বিষয়টি তারা ভবিষ্যতে গুরুত্ব দেবেন। বিজ্ঞাপন কোভিড-১৯ শনাক্তের জন্য দেশে এতদিন শুধু রিভার্স ট্রান্সক্রিপশন পলিমারেজ চেইন রিঅ্যাকশন (আরটি-পিসিআর) পদ্ধতি থাকলেও গত ৫ ডিসেম্বর থেকে দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্তে ১০ জেলায় অ্যান্টিজেন পরীক্ষা শুরু করা হয়। গাইবান্ধা, পঞ্চগড়, জয়পুরহাট, যশোর, মেহেরপুর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, পটুয়াখালী, মুন্সিগঞ্জ, মাদারীপুর ও সিলেটের সিভিল সার্জনদের সঙ্গে নিয়ে ভার্চ্যুয়ালআরও পড়ুন