Main Menu

বুধবার, অগাস্ট ৫th, ২০২০

 

বাউফলে চোরকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ 

পটুয়াখালীর বাউফলের সুলতানাবাদ গ্রামে নাইমুল (২০) নামে এক পেশাদার চোরকে আটকের পর গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে স্থানীয়রা। নাইমুল ওই গ্রামের কাশেম চৌকিদারের ছেলে।  স্থানীয়রা জানান, সিঁদ কেটে গ্রামের আনছার হাওলাদারের বসতঘর থেকে নগদ ৭ হাজার টাকাসহ ৫টি মোবাইলফোন, স্বর্ণালঙ্কার ও অন্যান্য মালামাল চুরির পর স্থানীয়দের হাতে আটক হলে গণধোলাই দিয়ে রাস্তায় খুঁটির সঙ্গে বেঁধে রাখে নাইমুলকে।  এ সময় নাইমুল জনসম্মুখে একই গ্রামের সামসুল হক চৌকিদারের ছেলে রাতুলের (৩০) নির্দেশনায় সঙ্গবদ্ধ একটি দলের সঙ্গে চুরিসহ বিভিন্ন দূর্বৃত্তায়নে জড়িত স্বীকার করে। পরে খবর দিয়ে পুলিশের হাতে সোপর্দ করা হয় তাকে। সম্প্রতিআরও পড়ুন


Beirut reels from huge blast as death toll climbs to at least 135

More than 5,000 other people were injured in Tuesday’s explosion at Beirut port, Health Minister Hamad Hassan said, and up to 250,000 were left without homes fit to live in after shockwaves smashed building facades, sucked furniture out into streets and shattered windows miles inland. Hassan said tens of people remained missing. Prime Minister Hassan Diab declared three days of mourning from Thursday. The death toll was expected to rise from the blast, which officials blamed on a huge stockpile of highly explosive material stored for years in unsafe conditionsআরও পড়ুন


অহেতুক সন্দেহপ্রবণ মানসিকতা কমাতে পারে আয়ু

সন্দেহ কখনও কখনও খুব বিপদজনক একটি ব্যাপার হয়ে দাঁড়ায়। কারণ এটি একদিকে মানুষের পর্যবেক্ষণ শক্তিকে ধারাল করতে সাহায্য করে, তেমনই অহেতুক সন্দেহপ্রবন মানসিকতা যে কোনও সম্পর্কের বিশ্বাসের ভিত দুর্বল করে দেয়। সব কিছুর মতোই সন্দেহ করারও ভালো এবং মন্দ— দুই দিকই আছে। পুলিস, গোয়েন্দারা বিভিন্ন তদন্তের ক্ষেত্রে নানা সূত্র ও যুক্তির সাহায্যে সন্দেহভাজনের তালিকা তৈরি করে তদন্ত করেন। পেশাগত কারণে এটাই তাদের ক্ষেত্রে স্বাভাবিক। কিন্তু অনেক মানুষ অহেতুক, স্বভাবগত কারণে বিভিন্ন বিষয়ে, বিভিন্ন জনকে সন্দেহ করে থাকেন। এক্ষেত্রে এই সন্দেহপ্রবন মানসিকতা অনেক সম্পর্ক এমনকি ওই ব্যক্তির নিজেরও ক্ষতির কারণ হয়েআরও পড়ুন


চার দিনের ছেলেকে রেখে না ফেরার দেশে সাংবাদিক শাহাদাতের স্ত্রী

চার দিন বয়সের ফুটফুটে একটি ছেলে সন্তানকে রেখে না ফেরার দেশে চলে গেলেন একুশে টেলিভিশনের সাংবাদিক নাজমুস শাহাতাদের স্ত্রী হেলেনা খাতুন (২৮)। বুধবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে রাজধানীর আদ-দ্বীন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে বা আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যু বরণ করেন। বুধবার দুপুরের দিকে স্বজনরা তার লাশ নিয়ে শেরপুরের উদ্দেশ্য রওয়ানা হন। মাগরিবের নামাজের পর জানাজা শেষে হেলেনা খাতুনের বাবার বাড়িতে পারিবারিক কবরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন হয়। এর আগে গর্ভাবস্থায় হেলেনা খাতুনের প্রেসার খুব বেড়ে গেলে তাকে প্রথমে ময়মনসিংহ মেডিকেলে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে তাকে ঢাকারআরও পড়ুন


Two government agencies give officials special pay but they are not COVID-19 service providers

The officials of Bangladesh Atomic Energy Regulatory Authority or BAERA and Bangladesh Atomic Energy Commission or BAEC have received the incentives for continuing office during the coronavirus lockdown. Some of them declined the pay considering that the government announced the scheme for only doctors, nurses and health workers directly involved in treatment of COVID-19 patients, and for some bankers. Now questions are being asked in the two organisations about the incentives provided without a decision made at any commission meeting. The government in April announced health insurance coverage between Tkআরও পড়ুন