Main Menu

বৃহস্পতিবার, মে ২১st, ২০২০

 

যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় ২৪ ঘন্টায় ১ হাজার ৪০৩ জনের মৃত্যু

নিউইয়র্ক প্রতিনিধিঃ সময়ের সঙ্গে পাল্লা যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুর পাল্লা ভারী হচ্ছে। দেশটিতে এরই মধ্যে করোনায় মৃত্যুর হয়েছে ৯৪,৯৩৬ জনের। বর্তমানে বিশ্বের ২১২টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুতে শীর্ষে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যায় যুক্তরাষ্ট্রের ধারে-কাছে নেই কোনো দেশ। যুক্তরাষ্ট্রের ৫০টি অঙ্গরাজ্যেই ছড়িয়ে পড়েছে এই প্রাণঘাতী ভাইরাস। ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্য অনুযায়ী, বুধবার দেশটিতে নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা ২২ হাজার ১৪০ জন। অপরদিকে একদিনেই মারা গেছে ১ হাজার ৪০৩ জন।


চট্টগ্রামে একদিনে করোনা শনাক্ত ২৫৭

চট্টগ্রাম ব্যুরোঃ চট্টগ্রামে একদিনে সর্বোচ্চ ২৫৭ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। আক্রান্তের সংখ্যা ১২শ’ ছাড়িয়ে গেছে। নতুন আক্রান্তদের মধ্যে ২২৫ জন চট্টগ্রাম মহানগরীর এবং ৩২ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা। আক্রান্তদের মধ্যে মুক্তিযোদ্ধা, পুলিশ সদস্য, চিকিৎসক আছেন। বুধবার রাতে চট্টগ্রামের তিনটি ও কক্সবাজারের একটি ল্যাবে নমুনা পরীক্ষা পর এই তথ্য জানানো হয়েছে। জেলা সিভিল সার্জনের কার্যালয় থেকে জানানো হয়, ফৌজদারহাটে বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল এন্ড ইনফেকশাস ডিজিজেজ- বিআইটিআইডিতে ২৩৯ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৪১ জনের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। এদের মধ্যে ৩২ জন চট্টগ্রাম নগরীর এবং বাকি ৯ জনের মধ্যে চন্দনাইশ উপজেলারআরও পড়ুন


ঘূর্ণিঝড় আম্ফান এখন নিম্নচাপ

স্টাফ রিপোর্টারঃ বুধবার (২০ মে) সন্ধ্যারাত থেকে শুরু হয় অতিপ্রবল ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের তাণ্ডব। সারারাত এটি ঘূর্ণিঝড় রূপে থেকেই দেশের দক্ষিণ-দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে তাণ্ডব চালিয়েছে। সারারাত তাণ্ডব চালানোর পর বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৭টার পর এটি স্থল নিম্নচাপে পরিণত হয়। এরপর স্থল নিম্নচাপ হিসেবে রাজশাহীতে অবস্থান করছিল আম্ফান। বৃহস্পতিবার (২১ মে) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে এসব তথ্য জানিয়েছে বাংলাদেশের আবহাওয়া অধিদফতর। এ সময় এক আবহাওয়াবিদ (তিনি নাম প্রকাশ করেননি) বলেন, ‘আম্ফান এখন রাজশাহী অঞ্চলে আছে। আম্ফান ঘূর্ণিঝড় (বাতাসের গতি ঘণ্টায় ৬২ কিলোমিটারের ওপরে থাকলে ঘূর্ণিঝড় বলে) থেকে একধাপ নিচে নেমেছে। এটা এখন স্থল নিম্নচাপআরও পড়ুন


ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের আঘাতে ৭ জনের মৃত্যু

স্টাফ রিপোর্টারঃ প্রলয়ঙ্করী ঘূর্ণিঝড় আম্ফানে বাংলাদেশের উপকূলের বেশ কিছু এলাকা লণ্ডভণ্ড হয়েছে। জলোচ্ছ্বাস ও বাধ ভেঙে নিন্মাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। আবহাওয়া অফিস সূত্রে জানা গেছে, আম্ফানের তীব্রতা অনেকটাই কমে বৃহস্পতিবার ভোর রাতের মধ্যেই বাংলাদেশ অতিক্রম করবে। উপকূলীয় জেলাগুলোতে ঝড়ের তীব্রতা খুব বেশি না হলেও এখন পর্যন্ত ৭ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। আবহাওয়া অফিস জানায়, ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের কেন্দ্র সাতক্ষীরার খুব কাছ দিয়ে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ অতিক্রম করছে। সাতক্ষীরা শহরে রাত বাড়ার সাথে সাথে ঝড়ের গতিবেগও কমতে থাকে। যদিও বিকেল থেকেই আম্ফানের ঝড়ো বাতাস সাতক্ষীরা-সুন্দরবন এলাকায় প্রবেশ করে। এদিকে সাগরের নিকটবর্তী এলাকাগুলোতে এরইমধ্যেআরও পড়ুন