Main Menu

বুধবার, এপ্রিল ৮th, ২০২০

 

শবে-বরাতের আমল ও ফজিলত

খালেদ সাইফুল্লাহ সিদ্দিকীঃ করোনাভাইরাসজনিত পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে এবারের শবে-বরাত সমাগত। ধর্মপ্রাণ মুসলমানগণ করোনা সংক্রান্ত সরকার ঘোষিত যাবতীয় বিধিমালা পরিপূর্ণভাবে অবশ্যই অনুসরণ করে চলবেন। বিশেষভাবে এবারের শবে-বরাতের আমলগুলো কীভাবে পালন করা উচিত তার খোলাসা নিম্নরূপ: ১। ইসলামে নফল ইবাদত ঘরে আদায় করা উত্তম বলে উল্লেখ করা হয়েছে। শবে-বরাতে নফল ইবাদতগুলো অতি উত্তম, তবে এবার যেহেতু পরিস্থিতি অন্যরকম এবং প্রায় সর্বত্র মসজিদসমূহে রাষ্ট্রীয় বা সরকারি কড়াকড়ি আরোপিত হয়েছে, সেহেতু শবে-বরাতের যাবতীয় ইবাদত ঘরেই সমাধা করা উচিত। ২। শবে-বরাতের নফল নামাজ আদায়ের জন্য রাকাতের সীমা ও সূরা নির্ধারিত নয়, তাই যার যার খুশিমত এবংআরও পড়ুন


ডব্লিউএইচও ‘চীনের প্রতি খুব পক্ষপাতদুষ্ট’ বলে মনে হচ্ছে

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ এবার বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে (ডব্লিউএইচও) হুমকি দিল মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের। চীনের প্রতি ডব্লিউএইচও’র পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ এনে সংস্থাটিতে মার্কিন তহবিল দান হ্রাসের হুমকি দেন ট্রাম্প। মঙ্গলবার ট্রাম্প সাংবাদিকের বলেন, আমরা ডব্লিউএইচও’র পিছনে অর্থ ব্যয় স্থগিত করতে যাচ্ছি। তবে ঠিক কী পরিমাণে টাকা দেওয়া বন্ধ করতে যাচ্ছেন সে সম্পর্কে তিনি স্পষ্ট করে কিছু বলেন নি। ট্রাম্প বলেন, আমি সেটা করতে যাচ্ছি। তিনি আরও বলেন, তহবিল যাতে বন্ধ করে দেওয়া হয় সেই বিষয়ে আমি নজর রাখবো। ট্রাম্পের অভিযোগ, ডব্লিউএইচও ‘চীনের প্রতি খুব পক্ষপাতদুষ্ট’ বলে মনে হচ্ছে। তিনি বলেন, এটি ঠিকআরও পড়ুন


করোনা পরীক্ষার অনুমোদনহীন টেস্ট কিট ব্যবহার না করার নির্দেশ

স্টাফ রিপোর্টারঃ করোনা ভাইরাস শনাক্ত করার জন্য চীন থেকে ব্যক্তিগত উদ্যোগে আমদানি করা র‌্যাপিড টেস্ট কিট নিয়ে একধরনের উদ্বেগ তৈরি হয়েছে। দেশের বেশ কয়েকটি জায়গায় এসব র‌্যাপিড টেস্ট কিট বিতরণও করা হয়েছে। দ্রুত সময়ের মধ্যে ‘করোনা ভাইরাস শনাক্ত’ করার জন্য এসব কিট ব্যবহার করা হয়। বঙ্গবন্ধু মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপ-উপাচার্য ও ভাইরোলজিস্ট অধ্যাপক নজরুল ইসলাম বলেন, এসব র্যাপিড টেস্ট কিট ব্যবহারের কিছু বিপদ রয়েছে। এগুলোর মান সম্পর্কে শতভাগ নিশ্চিত হতে না পারলে পরীক্ষার ফলাফল ভুল হওয়ার ঝুঁকি থাকতে পারে। সেজন্য ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর দ্বারা এগুলোর মান নির্ণয় করা জরুরি। কিন্তুআরও পড়ুন


নিউইয়র্কে করোনায় একদিনে ৭৩১ প্রাণহানি

নিউইয়র্ক প্রতিনিধিঃ যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্যে একদিনে করোনায় আক্রান্ত রোগীর মৃত্যুতে রেকর্ড তৈরি হয়েছে। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার ২৪ ঘণ্টায় নিউইয়র্কে ৭৩১ জন প্রাণ হারিয়েছেন। যা একদিনে সেখানে সর্বোচ্চ মৃত্যুর ঘটনা। এ নিয়ে শুধু নিউইয়র্কে করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে এখন ৫ হাজার ৪৮৯। নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্যের গভর্নর অ্যান্ড্রু কুমো এ তথ্য দিয়ে বলেন, ‘আমরা আজও ৭৩১ জনকে হারালাম। এই প্রত্যেকটি সংখ্যাই এক একজন মানুষ। এরমধ্যে পরিবার আছে, মা আছেন, বাবা আছেন, বোন আছেন কিংবা ভাই আছেন। নিউইয়র্কের অনেক মানুষের জন্য আজও এটি একটি বেদনার দিন। কষ্টের দিন।’ মহামারি করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের নতুন কেন্দ্রস্থল এখনআরও পড়ুন


ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় করোনায় মালয়েশিয়া প্রবাসীর মৃত্যু, শ্বশুরবাড়ি লকডাউন

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধিঃ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলায় শ্বাসকষ্ট নিয়ে এক মালয়েশিয়া প্রবাসীর মৃত্যু হয়েছে। করোনাভাইরাসে মৃত্যু সন্দেহে ওই প্রবাসীর শ্বশুরবাড়ি লকডাউন করে দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন। মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে উপজেলার জেঠাগ্রামে শ্বশুরবাড়িতে তার মৃত্যু হয়। মারা যাওয়া ৩৫ বছর বয়সী ওই প্রবাসীর বাড়ি একই উপজেলার পূর্বভাগ গ্রামে। স্থানীয়রা জানান, ওই প্রবাসী গত ১৮ মার্চ মালয়েশিয়া থেকে দেশে ফেরেন। এরপর নাসিরনগর উপজেলা প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগের নির্দেশনায় ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টিনে থাকেন। কোয়ারেন্টিনে থাকাকালে তার শারীরিক কোনো সমস্যা দেখা দেয়নি। পরে ৪ মার্চ তিনি কিছুটা অসুস্থ বোধ করলে তার শারীরিক কিছু পরীক্ষা করানোআরও পড়ুন