Main Menu

সোমবার, মার্চ ২৫th, ২০১৯

 

আজ সেই ভয়াল ২৫ মার্চ : গণহত্যার ইতিহাসে এক জঘন্যতম ভয়াবহ ঘটনা

স্টাফ রিপোর্টারঃ আজ সেই ভয়াল ২৫ মার্চ। এদিন রচিত হয় ইতিহাসের ভয়াবহতম বর্বরতম অধ্যায়। মধ্যরাতের পূর্বমুহূর্তে ঢাকায় শুরু হয় পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর নৃশংস হত্যাকান্ড ও ধ্বংসের তান্ডব। অপারেশন সার্চলাইট বাস্তবায়নে পাশব নখর বিস্তার করে নিরস্ত্র বাঙালির উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে সৈন্যরা। ঘুমন্ত মানুষের উপর নেমে আসে গজব। পাকিস্তানি সৈন্যরা সে রাতে বইয়ে দিয়েছিল রক্তের বন্যা। ঢাকা পরিণত হয়েছিল লাশের শহরে। অস্ট্রেলিয়ার ‘সিডনি মর্নিং হেরাল্ড’ পত্রিকার ভাষ্য মতে, শুধুমাত্র ২৫ মার্চ রাতেই বাংলাদেশে প্রায় ১ লাখ মানুষকে হত্যা করা হয়েছিল, যা গণহত্যার ইতিহাসে এক জঘন্যতম ভয়াবহ ঘটনা। জাতীয় সংসদে ২০১৭ সালের ১১ মার্চআরও পড়ুন


৫ম উপজেলা পরিষদ নির্বাচন : তৃতীয় ধাপে নির্বাচিত হলেন যারা

স্টাফ রিপোর্টারঃ পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রথম দুই ধাপের মত তৃতীয় ধাপেও বেশিরভাগ জায়গায় আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা জয়লাভ করেছেন। ১১৭টি উপজেলায় ভোট অনুষ্ঠিত হয়। বিএনপিসহ বেশিরভাগ রাজনৈতিক দল এ নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা করায় দলীয়ভাবে অনুষ্ঠিত উপজেলায় ভোটের জৌলুস হারিয়েছে। ভোটার উপস্থিতিও উল্লেখযোগ্য হারে কমেছে। বেশিরভাগ জায়গায় আওয়ামী লীগের প্রতিদ্বন্দ্বি আওয়ামী লীগ। গত ১০ মার্চ প্রথমধাপের ৭৮টি উপজেলায় ভোট পড়ে ৪৩ দশমিক ৩২ শতাংশ হারে। দ্বিতীয় ধাপে ১৮ মার্চ ১১৬টি উপজেলায় ভোট পড়ে ৪১ দশমিক ২৫ শতাংশ হারে। তৃতীয় ধাপে ৪৫ শতাংশের মতো ভোট পড়তে পারে বলে ধারণা করছেন নির্বাচন কমিশনআরও পড়ুন


আসুন এই দখলদার স্বৈরাচারের বিরুদ্ধে আমরা লড়াই করি

স্টাফ রিপোর্টারঃ বেগম খালেদা জিয়া গ্রেফতারের পর কর্মসূচিতে কতজন এসেছে কারা কারা আস্তে আস্তে চলে গেছেন তা জানা আছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি নেতাদের বক্তব্যের প্রতি ইঙ্গিত করে বলেন, আজকে অনেকে অনেক কথা বলছেন। আমরা দেখেছি, আমাদের নেত্রীর গ্রেপ্তারের পরে যখন কর্মস‚চি দিয়েছি কতজন এসেছেন, কতজন আসেননি। আমরা তো দেখেছি কারা কারা সেই কর্মসূচির মধ্য থেকে আস্তে আস্তে চলে গেছেন। এই নির্বাচনের মধ্যে কারা বেরিয়ে এসছেন, প্রতিবাদ করেছেন, কারা প্রতিবাদ করেননি। শুধু কথা বলে, একটা বন্ধ আবদ্ধ ঘরের মধ্যে নিরাপদ জায়গায় এসব কথা বলেআরও পড়ুন


বাংলাদেশে চালানো পাকিস্তানের গণহত্যার বিষয়টি আন্তর্জাতিক ফোরামে উত্থাপন করবো

স্টাফ রিপোর্টারঃ দেশে ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধকালে পাকিস্তানের চালানো গণহত্যার বিষয়টি আন্তর্জাতিক ফোরামে তুলে ধরবে জাতিসংঘ। গতকাল সকালে প্রধানমন্ত্রীর তেজগাঁওয়ের কার্যালয়ে শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎকালে জাতিসংঘের আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেল এবং প্রিভেনশন অব জেনোসাইড বিষয়ক বিশেষ উপদেষ্টা অ্যাডামা ডিয়েঙ্গ একথা বলেন। তিনি বলেন, যদিও কিছু কিছু দেশ এর বিরোধিতা করবে, তবু আমরা মুক্তিযুদ্ধকালে বাংলাদেশে চালানো পাকিস্তানের গণহত্যার বিষয়টি আন্তর্জাতিক ফোরামে উত্থাপন করবো। বৈঠকের পর প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন। এ সময়ে প্রধানমন্ত্রী পাকিস্তানী দখলদার বাহিনী ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ এদেশে যে গণহত্যা শুরু করে তা স্মরণ করে বলেন,আরও পড়ুন