Main Menu

বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ১৫th, ২০১৮

 

আজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর

পটুয়াখালী প্রতিনিধিঃ আজ ভয়াল ১৫ নভেম্বর। ২০০৭ সালের ১৫ নভেম্বর রাতেই প্রলয়ঙ্করী ঘূর্ণিঝড় সিডর আঘাত হানে উপকূলীয় জেলা পটুয়াখালীতে। সেদিনের সেই ঘূর্ণিঝড়ে সরকারি হিসাব মতে ৪৬৬ জন প্রাণ হারান। ক্ষতিগ্রস্ত হয় ফসলি জমি, লণ্ডভণ্ড হয়ে যায় উপকূলীয় জনপদ। তবে এই জলোচ্ছ্বাস মোকাবেলার পর উপকূলের মানুষ এখন অনেকটাই সচেতন। কমেছে দুর্যোগকালীন মৃত্যুহারও। জানা গেছে, ২০০৭ সালের সুপার সাইক্লোন ঘূর্ণিঝড় সিডরে নিখোঁজ হয় প্রায় অর্ধশতাধিক মানুষ। এছাড়া সেসময় আহত হয় সাড়ে আট হাজার মানুষ। যাদের মধ্যে দুই হাজার মানুষ পঙ্গু হয়েছে। বিদ্ধস্ত হয় ৫৫ হাজার ঘর-বাড়ি, দেড় হাজার মসজিদ-মন্দিরসহ ৩৫১টি স্কুল-কলেজ। নষ্টআরও পড়ুন


নির্বাচন পেছানোর বিষয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হবে

স্টাফ রিপোর্টারঃ নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমেদ বলেছেন, নির্বাচন জানুয়ারিতে হলে অনেক সমস্যা হবে। তবু নির্বাচন পেছানোর বিষয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হবে। কমিশন সভায় নিবার্চন পেছানোর বিষয়টি আলোচনা হবে, সেখানে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় নির্বাচন কমিশন ভবনে আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি দল ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক শেষে উপস্থিত সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি। নির্বাচন কমিশন সচিব বলেন, নয়াপল্টনের বিষয় খতিয়ে দেখবে কমিশন। এছাড়া বিএনপি‘র দলীয় কার্যালয়ে উৎসবমুখর পরিবেশে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ আচরণবিধি লঙ্ঘন নয়। তবে নয়াপল্টনে যে সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে, সেটা কেন ঘটলো তা আমরা খতিয়েআরও পড়ুন


মির্জা আব্বাসকে আসামি করে ৩ মামলা ।। গ্রেফতার ৫০

স্টাফ রিপোর্টারঃ নয়া পল্টনে বিএনপি কার্যালয়ের সামনে সংঘর্ষের ঘটনায় দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসকে আসামি করে তিনটি মামলা করেছে পুলিশ। পল্টন থানায় এই তিনটি মামলা দায়ের হয়েছে বলে থানার ওসি মাহমুদুল হাসান বুধবার রাতে জানান। তিনি বলেন, “গাড়ি ভাংচুর, অগ্নিসংযোগ, রাস্তা অবরোধ, পুলিশকে মারধর, সরকারি কাজে বাধার অভিযোগে এসব মামলা হয়।” মামলাগুলোতে বিএনপি নেতা মির্জা আব্বাসকেও আসামি করা হয়েছে জানিয়ে ওসি বলেন, এসব মামলায় অন্তত ৫০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। নির্বাচন সামনে রেখে মনোনয়ন ফরম বিক্রির কার্যক্রমের মধ্যেই ঢাকার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে বুধবার দুপুরে পুলিশের সঙ্গে দলটিরআরও পড়ুন


পুলিশ-বিএনপি সংঘর্ষে রণক্ষেত্র নয়াপল্টন

স্টাফ রিপোর্টারঃ সব কিছু ঠিকঠাক চলছিল। তৃতীয় দিনও উৎসবের আমেজে বিএনপি নেতাকর্মীরা দলীয় মনোনয়ন ফরম কিনছিলেন। গতকাল বেলা প্র্রায় ১টায় হঠাৎ পাল্টে যায় দৃশ্যপট। রাজধানীর নয়াপল্টন বিএনপি অফিসের সামনের সড়কে জড়ো হওয়া নেতাকর্মীদের সরাতে যায় পুলিশ। এতে বাধ সাধে বিএনপির নেতাকর্মীরা। পুলিশ নেতাকর্মীদের সরিয়ে দেয়ার চেষ্টা করলে পুলিশের সঙ্গে তাদের শুরু হয় বাকবিতন্ডা। এক পর্যায়ে পুলিশ লাঠিচার্জ করলে বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীদের পুলিশের সঙ্গে শুরু হয় ব্যাপক ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া। মুহূর্তে পুরো নয়াপল্টন রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ গুলি, কাঁদানে গ্যাস শেল নিক্ষেপ করে এবং লাঠিপেটা করে। এতে শতাধিক আহত হয়েছেন।আরও পড়ুন


ঐক্যবদ্ধ থাকা ছাড়া এ নির্বাচনে বিজয় আসবে না

স্টাফ রিপোর্টারঃ আওয়ামী লীগের সকল প্রার্থীকে ঐক্যবদ্ধ থাকার নির্দেশ দিয়ে দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমি যাকেই মনোনয়ন দেবো, তাকেই আপনাদের মেনে নিয়ে কাজ করতে হবে। তার পক্ষেই ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে। আগামী নির্বাচন খুব কঠিন নির্বাচন হবে। খুব প্রতিদ্ব›িদ্বতাপূর্ণ হবে। এই সময় সবার ঐক্যবদ্ধ থাকা ছাড়া আর কোনো বিকল্প নেই। তা ছাড়া এ নির্বাচনে বিজয় আসবে না। এ সময় জেলা প্রশাসক, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, পৌরসভা মেয়র, উপজেলা চেয়ারম্যানদের নির্বাচনে মনোনয়ন দেয়া হবে না বলে জানিয়ে দেন প্রধানমন্ত্রী। গতকাল দুপুরে গণভবনে দলের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতেআরও পড়ুন