Main Menu

বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ২০th, ২০১৮

 

যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের বিধান রেখে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন পাস

স্টাফ রিপোর্টারঃ বহুল আলোচিত ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন, ২০১৮ পাস করেছে জাতীয় সংসদ। আইনের আটটি ধারার বিষয়ে সম্পাদক পরিষদের আপত্তি আমলে না নিয়েই এটি পাস হলো। আইনের ৩২ ধারায় অফিসিয়াল সিক্রেট অ্যাক্ট প্রয়োগ করে সরকারি কোনো কম্পিউটার, ডিজিটাল ডিভাইস, কম্পিউটার নেটওয়ার্ক, ডিজিটাল নেটওয়ার্ক বা অন্য কোনো ইলেকট্রনিক্স মাধ্যমে সংগৃহীত তথ্যকে (‘তথ্য পাচারের’) অপরাধ হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। এই অপরাধ সংঘটন ও সংঘটনে সহায়তার দায়ে ১৪ বছরের কারাদণ্ড বা ২৫ লাখ টাকার অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডের বিধান রাখা হয়েছে। যদি কেউ একই অপরাধ দ্বিতীয়বার বা বারবার করেন, তাহলে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড বা ১আরও পড়ুন


জেল থেকে বেরিয়েছেন নওয়াজ ও তার মেয়ে মরিয়ম

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ পাকিস্তানের সাবেক প্রেসিডেন্ট নওয়াজ শরিফ, তার মেয়ে মরিয়ম নওয়াজ ও মেয়ের জামাই মোহাম্মদ সাফদার আদিয়ালা জেল থেকে বেরিয়েছেন। বুধবার ইসলামাবাদ হাইকোর্টের আদেশের পর তারা জেল থেকে ছাড়া পান। খবর ডন পিএমএলএনের সভাপতি শাহবাজ শরিফসহ দলের সিনিয়র নেতারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন। বিকালে তারা আদালতের আদেশ নিয়ে আদিয়ালা জেল গেটে জড়োহন। কারাগারের বাহিরে দলের সিনিয়র নেতাদের সঙ্গে তার দলের সমর্থকরা অপেক্ষা করছিলেন। কারাগার থেকে বের হয়ে তিনি চাকলালা থেকে ব্যক্তিগত বিমানে লাহোরের উদ্দেশ্যে রওনা দেন। এর আগে বুধবার দুপুরে হাইকোর্টের একটি বেঞ্চের বিচারক আতাহার মিনহাল ও মিয়ানগুল হাসান আওরাঙ্গজেবআরও পড়ুন


ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য চায় বিএনপি

স্টাফ রিপোর্টারঃ জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার আহ্বায়ক ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য চায় বিএনপি। চলতি মাসের শেষে সরকারের বাইরে থাকা রাজনৈতিক দল ও জোট নিয়ে এ ঐক্যের আনুষ্ঠানিক ঘোষণার সম্ভাবনা আছে বলে বিএনপির নীতিনির্ধারণী পর্যায়ের এক নেতা জানিয়েছেন। বিষয়টি নিয়ে সোমবার ও বুধবার রাতে অনুষ্ঠিত বিএনপির নীতিনির্ধারকদের বৈঠকে আলোচনা হয়েছে। সেখানে অধিকাংশ সদস্য ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বের বিষয়ে পক্ষে মত দিয়েছেন। এখন এ ব্যাপারে লন্ডনে চিকিৎসাধীন দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান সবুজ সংকেত দিলেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে দলটি। এর আগে সোমবার রাতে অনুষ্ঠিত দলের নীতিনির্ধারকদের বৈঠকেআরও পড়ুন


গোয়েন্দা সংস্থার হুমকির মুখে আমি পদত্যাগপত্র পেশ করি

বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহাঃ পাঠকদের কাছে সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহাকে(এস কে সিনহা) পরিচয় করিয়ে দেয়ার প্রয়োজন পড়ে না। ১৯৯৯ সালে তৎকালীন আওয়ামী লীগ সরকারের শাসনামলে তিনি হাইকোর্ট বিভাগের অস্থায়ী বিচারক হিসেবে নিয়োগ পান। ২০১৫ সালের ১৭ জানুয়ারী তিনি বাংলাদেশে প্রথম হিন্দু ধর্মাবলম্বী হিসেবে প্রধান বিচারপতি হওয়ার গৌরব অর্জন করেন। দেশের ২১তম প্রধান বিচারপতি হিসেবে চলতি বছরের ৩১ জানুয়ারি তাঁর অবসরে যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু মেয়াদ শেষ হওয়ার ৮১ দিন আগেই তাকে প্রধান বিচারপতির পদ থেকে রহস্যজনকভাবে বিদায় নিতে হয়। একটি রায়ের পর্যবেক্ষণের মন্তব্যকে ইস্যু করে প্রধান বিচারপতি এসকে সিনহাআরও পড়ুন


দেশটা আমাদের কারও একার নয়

স্টাফ রিপোর্টারঃ প্রধানমন্ত্রী ও সংসদ নেতা শেখ হাসিনা আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে ’রাজনৈতিক মান-অভিমান’ ভাঙ্গাতে কোন উদ্যোগ গ্রহণের সম্ভাবনা নাকচ করে দিয়ে বলেছেন, এখানে মান-অভিমানের কিছু নেই, এটা হচ্ছে নীতির প্রশ্ন। রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত ও আইনের প্রশ্ন। দেশের মানুষকে গ্রাম পর্যায় পর্যন্ত উন্নয়নের ছোঁয়া দিতে পেরেছি সেটাই আমাদের সবচেয়ে বড় পাওয়া। এখানে কে মান-অভিমান করলো, কার মান ভাঙ্গাতে যাব- সেটা আমি জানি না। তবে সহানুভূতি দেখাতে যেয়ে যদি অপমানিত হয়ে ফিরে আসতে হয়, সেখানে আর যাবার কোন ইচ্ছা আমার নেই। গতকাল বুধবার জাতীয় সংসদ অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রীর জন্য নির্ধারিত ত্রিশ মিনিটের প্রশ্নোত্তরআরও পড়ুন