Main Menu

শুক্রবার, অগাস্ট ৩rd, ২০১৮

 

‘উই ওয়ান্ট জাস্টিস’ স্লোগানে মুখরিত সারাদেশ

স্টাফ রিপোর্টারঃ সারা দেশের স্কুল কলেজ বন্ধ থাকার পরেও গতকাল পঞ্চম দিনের মতো রাজপথে নেমে আসে শিক্ষার্থীরা। বৃষ্টি উপেক্ষা করে নিরাপদ সড়কের দাবিতে রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের অবস্থানে অচল হয়ে পড়ে পুরো নগরী। শিক্ষার্থীদের এ আন্দোলন ছড়িয়ে পড়েছে সারাদেশে। বিমানবন্দর সড়কে বাসচাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহত হওয়ার ঘটনার প্রতিবাদে চলমান এ আন্দোলনে গতকালও রাজধানীতে বেশিরভাগ গণপরিবহনকে রাস্তায় দেখা যায়নি। এতে চরম দুর্ভোগ ও ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে অফিসগামীদের। এরপরও দুর্ভোগের শিকার নগরবাসী বলছেন, শিক্ষার্থীরা তাদের যৌক্তিক দাবি নিয়ে শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করছে। আন্দোলন আমরা সমর্থন করি। পরিবহন সেক্টরের এআরও পড়ুন


দোহারে ট্রাকচাপায় সপ্তম শ্রেণির স্কুলছাত্র নিহত

স্টাফ রিপোর্টারঃ ঢাকার দোহারে ট্রাকচাপায় মো. রেশাদ (১৩) নামে এক স্কুলশিক্ষার্থী নিহত হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৮টার দিকে উপজেলার চরকুশাই এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। রেশাদ নবাবগঞ্জ উপজেলার বান্দুরা হলিক্রস স্কুল অ্যান্ড কলেজের সপ্তম শ্রেণির শিক্ষার্থী। রেশাদ দোহার উপজেলার জামালচর এলাকার শামসুল হকের ছেলে। দোহার থানা মাহমুদপুর পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক নুরুল হুদা জানান, সকালে আমবোঝাই একটি ট্রাক (ঢাকা মেট্রো-ন-১৩-০২৩০১) মানিকগঞ্জ থেকে দোহারে আসছিল। পথে চরকুশাই নামক স্থানে বিপরীত দিক থেকে মোটরসাইকেলে আসা রেশাদকে ওই ট্রাকটি চাপা দিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে যায়। স্থানীয়রা গুরুতর আহতাবস্থায় রেশাদকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলেআরও পড়ুন


স্বাধীনতার ৪৭ বছর পরে ‘ইমার্জেন্সি লেন’ তৈরি করে তাক লাগিয়ে দিয়েছে শিক্ষার্থীরা

স্টাফ রিপোর্টারঃ হঠাৎ জরুরি কোনো সমস্যা হলে যানজট কাটিয়ে কোনোদিক দিয়ে যাওয়ার বিকল্প কোনো পথ নেই। যার কারণে অনেক সময় রাজপথে অ্যাম্বুলেন্সে মুমূর্ষু রোগী নিয়েও রাস্তায় ঘণ্টার পর ঘণ্টা জ্যামে আটকে থাকতে হয় ভুক্তভোগীদের। পৃথিবীর বিভিন্ন সভ্য ও উন্নত দেশগুলোর রাজপথে আলাদা ‘ইমার্জেন্সি লেন’ থাকে। প্রচণ্ড যানজটের মধ্যেও এই লেন দিয়ে অ্যাম্বুলেন্স, ফায়ার সার্ভিস, পুলিশের গাড়ি যেতে পারে। স্বাধীনতার ৪৭ বছর পরেও ঢাকার রাস্তায় এই দৃশ্য কেউ কল্পনাও করতে পারেনি। অথচ সেটাই করে দেখালো কোমলমতি শিক্ষার্থীরা। মেধাবী এ ছেলে-মেয়েরা ঢাকার রাজপথে ইমার্জেন্সি লেন তৈরি করে রীতিমতো তাক লাগিয়ে দিয়েছে সবাইকে।আরও পড়ুন


এবার ২০ দলীয় জোটের আন্দোলনের পালা

স্টাফ রিপোর্টারঃ কোটা সংস্কার আন্দোলন ও বর্তমান শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের দৃষ্টান্ত সামনে নিয়ে আগামী দিনে ২০ দলীয় জোট সরকার পতনের আন্দোলনের সিদ্ধান্ত নেবে বলে জানিয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান। তিনি বলেন, সব পরিস্থিতি ও অভিজ্ঞতা আমাদের পক্ষে। এই সরকারের পায়ের নিচের মাটি একেবারে নড়বড়ে। কোটা সংস্কার আন্দোলনে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে এরা (সরকার) নতি স্বীকার করেছে। কোমলমতি শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখেও এরা নতি স্বীকার করেছে। আমরাও (২০ দলীয় জোট) রাস্তায় নামলে এরা নতি স্বীকার করে পালিয়ে যাবে। বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। ‘প্রশাসনিক হস্তক্ষেপআরও পড়ুন


বিক্ষোভরত শিক্ষার্থীদের জামায়াত-শিবির উসকে দিচ্ছে কিনা খতিয়ে দেখা হচ্ছে

স্টাফ রিপোর্টারঃ বিক্ষোভরত শিক্ষার্থীদের দাবি মেনে নেয়ার প্রক্রিয়া শুরুর পর আন্দোলন করা অযৌক্তিক বলে মন্তব্য করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। বৃহস্পতিবার বিকালে সোনারগাঁও হোটেলে ঢাকা সাবওয়ে (আন্ডারগ্রাউন্ড মেট্রো) নির্মাণে সম্ভব্যতা সমীক্ষা পরিচালনায় পরামর্শক প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে মন্ত্রী এ কথা বলেন। শিক্ষার্থীরা এখনো আন্দোলন করে যাচ্ছে এভাবে সমস্যার সমাধান হবে কিনা সাংবাদিকদের প্রশ্নে কাদের বলেন, তাদের দাবিনামা যৌক্তিক আমি আগেও বলেছি, দাবিনামা মেনে নেয়ার পর আন্দোলন হয় সেটা কিন্তু অযৌক্তিক হবে। মন্ত্রী বলেন, দাবিনামা মেনে নেয়ার পথে অনেক দূর এগিয়ে গেছি এবং অনেকগুলো মেনে নেয়া হয়েছে। যেটাআরও পড়ুন