Main Menu

সোমবার, সেপ্টেম্বর ৪th, ২০১৭

 

গোটা দেশ টাইগারদের আরও একটি জয় দেখার অপেক্ষায়

খেলাধুলাডেস্কঃ রাজধানীর মতো দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর চট্টগ্রামেও ঈদের ছুটির আমেজ পরিষ্কার। রাস্তা ঘাটে ‘গাড়ি ঘোড়া’কম। বেশির ভাগ দোকানপাট বন্ধ। নগরের অন্যতম ব্যস্ত সড়কগুলোয় প্রাণ চাঞ্চল্য নেই বললেই চলে। সঙ্গে বৃষ্টি যোগ হওয়ায় শহর প্রায় কোলাহল শূন্য। এমন কোলাহল শূন্য নগরে কারও সঙ্গে সামনা-সামনি আলাপে কুশল ও সৌজন্য বিনিময়ের পর এখন দুটি বিষয় সবার মুখে মুখে। একটি রোহিঙ্গা ইস্যু। আহত রোহিঙ্গাদের কেউ কেউ চট্টগ্রাম মেডিকেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তা দেখে মানবিক কারণে চট্টগ্রামবাসীর সহানুভূতিটা একটু বেশিই। এর পাশাপাশি ঈদের ছুটিতে চট্টগ্রামবাসী মেতে আছেন ক্রিকেট নিয়েও। কেন থাকবে না? তাদের শহরে এক বড়সড়আরও পড়ুন


রাজধানীতে ছাত্রলীগ নেতাকে পিটিয়ে হত্যা

স্টাফ রিপোর্টারঃ রাজধানীর আদাবরে মশিউর রহমান মশু নামের এক ছাত্রলীগ নেতাকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। নিহত মশিউর আদাবর ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। রোববার রাত সাড়ে ১০টার দিকে শেখেরটেক ১০ নম্বর সড়কে এ ছাত্রলীগ নেতাকে লোহার রড ও লাঠি দিয়ে বেধড়ক পেটায় হামলাকারীরা। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। আদাবর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আমিনুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। স্থানীয়দের বরাত দিয়ে পুলিশের এই কর্মকর্তা জানান, রাতে ওই এলাকা দিয়ে মোটরসাইকেলে ফিরছিলেন মশিউর। এ সময় কয়েকজন রড ও লাঠিআরও পড়ুন


হজের পর মদিনায় প্রিয় নবীর রওজা জিয়ারত

স্টাফ রিপোর্টারঃ ইবাদতের নিয়তে পৃথিবীর তিনটি স্থানের ভ্রমণে রয়েছে অত্যাধিক ফজিলত। তার মধ্যে মদিনা মুনাওয়ার তখা মসজিদে নববি একটি। বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে হজ উপলক্ষ্যে এ পবিত্র মসজিদে মুসলিম উম্মাহর সমাবেশ ঘটে। মুসলিম উম্মাহর যে সব হজযাত্রী হজ ও ওমরা পালনে প্রথমে মক্কায় অবস্থান করেছেন। হজের পর তাঁরা দু’এক দিনের মধ্যে মদিনায় গমণ করেন। সেখানে ইবাদত-বন্দেগিতে নিজেদের নিয়োজিত করেন। প্রিয়নবির রওজা জিয়ারতে তৃপ্ত হন। সেখানে নামাজের সাওয়াব অত্যাধিক। পবিত্র মসজিদে নারী ও পুরুষদের জন্য রয়েছে আলাদা আলাদা নামাজের ব্যবস্থা। তাছাড়া মদিনার রয়েছে অনেক বৈশিষ্ট্য ও হারামের সুনির্দিষ্ট সীমানা। যেখানে কোনো অন্যায়,আরও পড়ুন


রোহিঙ্গা মুসলিম গ্রামের ৭শ’রও বেশি বাড়ি আগুনে পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে

স্টাফ রিপোর্টারঃ মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস ওয়াচ (এইচআর ডব্লিউ) বলেছে, মিয়ানমার থেকে পাওয়া নতুন উপগ্রহ-চিত্রে দেখা যাচ্ছে যে একটি রোহিঙ্গা মুসলিম গ্রামের ৭শ’রও বেশি বাড়ি আগুনে পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে। খবর বিবিসি। সংস্থাটি বলছে, এসব ছবি গভীরভাবে উদ্বেগজনক, এবং এতে ধারণা পাওয়া যাচ্ছে যে রাখাইন প্রদেশের উত্তরাঞ্চলে ধ্বংসলীলার মাত্রা আসলে আগে যা ভাবা হয়েছিল তার চাইতে অনেক বেশি। মিয়ানমারের সেনাবাহিনী এবং সন্দেহভাজন রোহিঙ্গা জঙ্গিদের মধ্যে সংঘর্ষের পর গত সপ্তাহে হাজার হাজার সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিম সীমান্ত পেরিয়ে প্রতিবেশী বাংলাদেশে ঢুকেছে। পালিয়ে আসা এই শরণার্থীরা বলছে, মিয়ানমারের সৈন্যরা তাদের বাড়িঘরে আগুন লাগিয়ে দিয়েছে। তবেআরও পড়ুন


ক্ষমতাসীনরা রাষ্ট্রের শত্রু হিসেবে কাজ করছেন- রিজভী

স্টাফ রিপোর্টারঃ সরকার প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহাকে সরিয়ে দেয়ার ষড়যন্ত্র করছে বলে অভিযোগ করেছে বিএনপি। দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচি রুহুল কবির রিজভী আহমেদ বলেছেন, রাষ্ট্রপতিকে দিয়ে সংবিধানের ৯৭ অনুচ্ছেদ প্রয়োগের মাধ্যমে সরকার প্রধান বিচারপতিকে সরিয়ে ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি নিয়োগের পাঁয়তারা করছে। রোববার দলের নয়াপল্টনে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি করে বিএনপি রিজভী বলেন, প্রধানমন্ত্রী থেকে শুরু করে আওয়ামী লীগের নেতারা বিচার বিভাগের ওপর ন্যক্কারজনক আক্রমণ করে যাচ্ছেন। প্রধান বিচারপতির সঙ্গে বেআইনিভাবে ক্ষমতাসীন দলের নেতারা বৈঠক করে চাপ প্রয়োগ করছেন। তাতেও যখন তারা ব্যর্থ হয়েছেন, এখন তারা রাষ্ট্রপতিকে ব্যবহারআরও পড়ুন