Main Menu

মঙ্গলবার, অগাস্ট ২৯th, ২০১৭

 

হাকিম নড়বে; নাকি হুকুম নড়বে?

ডক্টর তুহিন মালিকঃ এক. সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী অবৈধ ঘোষণার পূর্ণাঙ্গ রায় ঘোষণার পর বলেছিলাম, ‘সুপ্রিম কোর্টের ঐতিহাসিক রায়ে ভয়াবহ সংকটের মুখোমুখি সরকার।’ বলেছিলাম, প্রধান বিচারপতির পর্যবেক্ষণ সরকারের বৈধতার বিষয়ে যে বড় ধরনের প্রশ্নের অবতারণা করেছে, তা গায়ের জোরে দমন করার শক্তি সরকারের নেই। কিন্তু খুবই আশ্চর্যজনকভাবে রায়ের দু’দিন না যেতেই অর্থমন্ত্রী গায়ের জোর দেখিয়ে বললেন, ‘আদালত যতবার ষোড়শ সংশোধনী বাতিল করবে, আমরা ততবার সংসদে বিল পাস করবো। তা আমরা অনবরত করতে থাকবো। দেখি জুডিশিয়ারি কত দূর যায়। জুডিসিয়াল কন্ডিশন আনটলারেবল। সংসদের উপর তারা পোদ্দারি করবে। এদেরকে আমরা চাকরি দেই।’ দুই. রাষ্ট্রেরআরও পড়ুন


হাটভর্তি গরু নিয়ে পশু ব্যবসায়ীরা মুখিয়ে রয়েছেন ক্রেতার অপেক্ষায়

স্টাফ রিপোর্টারঃ ঢাকায় কোরবানির অস্থায়ী পশুহাটগুলো কানায় কানায় ভরে উঠেছে। এরপরও ট্রাকে ট্রাকে গরু আসছে বিভিন্ন হাটে। এসব গরু হাট সংলগ্ন আশপাশের খালি জায়গা ও অলিগলিতে রাখা হচ্ছে। আগ্রহী ক্রেতারা হাট ঘুরে ঘুরে গরু দেখছেন আর দামাদামি করছেন। কিন্তু হাতেগোনা দু’একজন ছাড়া কেউ কিনছেন না। এখনও পুরোপুরি বিক্রি শুরু হয়নি। বিভিন্ন হাট ঘুরে কোথাও পশু বিক্রির তেমন খবর জানা যায়নি। তবে গাবতলী হাটে রুটিন বেচাকেনার অংশ হিসেবে প্রতিদিনই কম-বেশি গরু বিক্রি হচ্ছে। অন্যান্য হাটভর্তি গরু নিয়ে পশু ব্যবসায়ী ও ইজারাদাররা মুখিয়ে রয়েছেন ক্রেতার অপেক্ষায়। সরেজমিনে দেখা গেছে, রাজধানীর বছিলা পশুর হাটআরও পড়ুন


স্বাস্থ্য খাতে ৪ হাজার কোটি টাকা ঋণ দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক

স্টাফ রিপোর্টারঃ স্বাস্থ্য খাতের নতুন কর্মসূচিতে ঋণ ও অনুদান দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক। ‘চতুর্থ স্বাস্থ্য, জনসংখ্যা ও পুষ্টি সেক্টর কর্মসূচি (৪র্থ এইচএনপি)’ বাস্তবায়নে এ অর্থ ব্যয় করা হবে। এজন্য সোমবার ৫০ কোটি মার্কিন ডলার বা প্রায় ৪ হাজার কোটি টাকার ঋণ এবং ১ কোটি ৫০ লাখ ডলার বা প্রায় ১২০ কোটি টাকার অনুদান চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। এ কর্মসূচির মূল লক্ষ্য হচ্ছে দেশের সব নাগরিকের জন্য সুস্বাস্থ্য ও কল্যাণে এবং স্বাস্থ্যসম্মত পরিবেশ নিশ্চিতকল্পে সমতাভিত্তিক ও মানসম্মত স্বাস্থ্য সেবার সুযোগ বৃদ্ধি করা। তাছাড়া কর্মসূচিটির মাধ্যমে তিনটি কম্পোনেন্টের আওতায় বিস্তৃত কার্যক্রম গ্রহণ করা হবে। কম্পোনেন্টগুলো হল,আরও পড়ুন


রোহিঙ্গা মুসলমানদের বাংলাদেশে আশ্রয় দেওয়ার আহ্বান খালদা জিয়ার

স্টাফ রিপোর্টারঃ মিয়ানমারের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় রাখাইন রাজ্যে সহিংসতায় অসংখ্য মানুষের নিহত হওয়ার ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন বিএনপি চেয়ারপার্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া। সোমবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি-রোহিঙ্গাদের জীবন ও বসবাসের নিরাপত্তা বিধান এবং তাদের ওপর রক্তাক্ত সহিংসতার পূনরাবৃত্তি বন্ধ করতে মিয়ানমার সরকার প্রাজ্ঞ ও দুরদর্শী নীতি নিয়ে অগ্রসর হবে। এছাড়া তিনি বাংলাদেশে আশ্রয় পাওয়া রোহিঙ্গাদের জানমালের নিরাপত্তা নিশ্চিত করে নিজ দেশে ফেরত পাঠাতে বাংলাদেশ সরকারকে উদ্যোগ গ্রহণের আহবান জানান। দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে বিএনপি চেয়ারপারসন বলেন, রোহিঙ্গা সমস্যা নিয়েআরও পড়ুন


বন্যার ব্যাপারে আমরা প্রয়োজনীয় সব রকমের ব্যবস্থা নিয়েছি- স্পিকার

স্টাফ রিপোর্টারঃ জাতীয় সংসদের স্পিকার ও রংপুর-৬ (পীরগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, সরকার বন্যার্তদের পাশে আছে। কোনো লোকই খাদ্যের অভাবে কষ্ট পাবে না। বন্যার ব্যাপারে আমরা প্রয়োজনীয় সব রকমের ব্যবস্থা নিয়েছি। সোমবার দুপুরে উপজেলার কাবিলপুর ইউনিয়নের লালদীঘির মেলা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ ও কৃষি উপকরণ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। তিনি বলেন, বন্যার শুরুতেই পীরগঞ্জে ৫০ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। আজও ১’শ মেট্রিক টন চাল দেয়া হচ্ছে। স্পিকার আরও বলেন, বন্যায় রাস্তা-ঘাট, প্রতিষ্ঠান ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। আমরা সেগুলো সংস্কারে উদ্যোগ নিয়েছি।আরও পড়ুন