Main Menu

বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ১০th, ২০১৬

 

হিলারি কাঁদলেন এবং সবাইকে কাঁদালেন

নিজস্ব প্রতিনিধি :একের পর এক রাজ্যের ফল ডেমোক্রেট শিবিরে ধাক্কা দিয়ে গেছে। ডেমোক্রেটিক সদর দফতরে নেমে আসে পিনপতন নীরবতা। মার্কিন টেলিভিশনের প্রজেক্টে লাল রঙের টালির সংখ্যাগরিষ্ঠতায় ডেমোক্রেট সমর্থকরা কান্নায় ভেঙে পড়েন। প্রথমদিকে হিলারি ক্লিনটন এগিয়ে থাকলেও শেষ হাসি হাসলেন রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প। তা মেনে নিতে কষ্ট হয়েছে হিলারির সমর্থকদের। নিমিষেই বদলে যায় নিউইয়র্কে হিলারির প্রচারণা সদর দফতরের পরিবেশ। তার সমর্থকরা কাঁদছেন। বিষন্ন মনে ফিরে যাচ্ছেন বাড়িতে। বুকে জড়িয়ে তাদের সান্ত্বনা দিতে দেখা গেছে হিলারিকে। ‘আই এম উইথ হিলারি’ ও ‘এস্ট্রংগার টুগেদার’ স্লোগান নিয়ে সোমবার ৫ শতাধিক দিনের প্রচারণাআরও পড়ুন


প্রাথমিকের নতুন বইয়ে থাকবে প্রধানমন্ত্রীর ছবি

আগামী শিক্ষাবর্ষে প্রথম থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত প্রাথমিকের সব বইয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি থাকবে। শেখ হাসিনা নতুন বই বিতরণ করছেন- বইয়ের পেছনের কাভারে এমন রঙিন ছবি স্থান পাবে। ছবির নিচে শ্লোগান থাকবে- ‘শিক্ষা নিয়ে গড়বো দেশ/শেখ হাসিনার বাংলাদেশ।’ এবার প্রাথমিকের শিক্ষার্থীদের জন্য ১০ কোটি ৫১ লাখ ৩৬ হাজার বই ছাপা হচ্ছে। ইতিমধ্যে ছাপা হওয়া বইয়ের পেছনের কাভারে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার ছবি দেখা গেছে।প্রতি বছর ১ জানুয়ারি বিনামূল্যের বই বিতরণ করা হয়। বই বিতরণ উপলক্ষে ওইদিন ‘বই উৎসব’ পালন করে শিক্ষা এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। প্রাথমিক ওআরও পড়ুন


গণতান্ত্রিক আন্দোলনের ইতিহাসে নুর হোসেন একটি অবিস্মরণীয় নাম-খালেদা জিয়া

স্টাফ রিপোর্টার : আজ ১০ নবেম্বর বৃহস্পতিবার শহীদ নুর হোসেন দিবস। দিবসটি উপলক্ষে বাণী দিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপার্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া। এ উপলক্ষে আজ সকাল ৮টায় রাজধানীর জিরো পয়েন্টে শহীদ নুর হোসেন স্মৃতিস্তম্ভে বিএনপির উদ্যোগে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করা হবে। পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ অনুষ্ঠানে বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত থাকবেন। বিএনপি এবং এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের সকল পর্যায়ের নেতা-কর্মীকে যথাসময়ে শহীদ নুর হোসেন চত্বরে উপস্থিত থাকার জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে। বাণীতে খালেদা জিয়া বলেন, শহীদ নুর হোসেন দিবস উপলক্ষে আমি স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনের বীর শহীদ নুর হোসেনের স্মৃতির প্রতি গভীরআরও পড়ুন


গণতন্ত্রের ঐতিহ্যবাহী যুক্তরাষ্ট্রে ডোনাল্ড ট্রাম্প ‘অরাজনৈতিক প্রেসিডেন্ট’নির্বাচিত!

নিজস্ব প্রতিনিধি : যুক্তরাষ্ট্রের ২৪০ বছরের ইতিহাসে রিপাবলিকান দলীয় প্রার্থী ডোনাল্ড জন ট্রাম্প, সিনিয়র দেশটির ‘প্রথম অরাজনৈতিক প্রেসিডেন্ট’ নির্বাচিত হয়েছেন। এতে এই সর্বোচ্চ পদটিতে নেতৃত্বদানের ক্ষেত্রে কোনো সরকারি কিংবা সামরিক পদবিবিহীন এক ‘অরাজনৈতিক ও ব্যবসায়ী’ ব্যক্তির ভূমিকা নিয়ে সৃষ্ট জল্পনা-কল্পনা সাম্প্রতিক যুক্তরাজ্যের ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে ‘ব্রেক্সিট’র মতো বিচ্যুতির ক্ষতে উদ্ভাসিত। এই বিজয় অর্জনে দেশময় গণমানুষের আস্থা অর্জনে যেমন ট্রাম্পকে কানাডার ‘টরন্টো স্টার’ পত্রিকার অনুসন্ধান মতে ৫৬০টি মিথ্যাচারে একাগ্র ও একনিষ্ঠ হতে হয়েছে; তেমনি উত্তেজনা, ক্রোধ, বর্ণবিদ্বেষ, অভিবাসনবিরোধী অবস্থান, নারীবিদ্বেষ ও নারীর অশ্রুসিক্ত অপমানের আকুতিও অবজ্ঞা করতে হয়েছে। যারা ‘অক্টোজেনারিয়ান’ বা অশীতিপরআরও পড়ুন