Main Menu

শুক্রবার, জুলাই ১৫th, ২০১৬

 

আমার সব সিনেমাই ছোট ছোট গল্পের একেকটা সংগ্রহ

ইরানের কিংবদন্তি চলচ্চিত্রকার আব্বাস কিয়ারোস্তামি চলে গেলেন সম্প্রতি। ছাপা হলো তাঁর গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন সাক্ষাৎকারের নির্বাচিত অংশ। আব্বাস কিয়ারোস্তামি: সত্য হলো, এটি আমার জীবনের ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। আমি যতটা না গল্পকথক, সম্ভবত তার চেয়েও বেশি একজন গল্প-শ্রোতা। গল্প শুনতে সত্যিকার অর্থেই ভালো লাগে আমার। সেগুলো আমি বারবার স্মরণ করি, আর নিজের মগজে রেখে দিই। আমার সব সিনেমাই, নিজের কানে শোনা ছোট ছোট গল্পের একেকটা সংগ্রহ। ইরানে যখন ফিল্মমেকিংয়ের ক্লাস নিতাম, তখন স্কুলটিতে কীভাবে ছাত্র বাছাই করতাম, শুনতে চান? সিনেমা কিংবা এক কথায় যেকোনো ধরনের পড়াশোনার ব্যাপারে তাদের কাছে জানতে চাইতাম নাআরও পড়ুন


মেকি হাসি চেনার উপায় কী?

কেউ প্রাণ খুলে হাসেন, আবার কেউ হাসির ভান করেন। কিন্তু ঠিকমতো খেয়াল করলে নকল হাসি চেনা যায়। মেকি হাসির কাজটা কিন্তু বেশ কঠিন। ফরাসি স্নায়ুবিশারদ গিয়ম দুশন ১৮৬২ সালে এক গবেষণায় দেখেছেন, আসল ও নকল হাসির জন্য মানুষ মুখমণ্ডলের ভিন্ন ভিন্ন মাংসপেশি ব্যবহার করে। সব রকমের হাসির জন্যই মুখের চারপাশের মাংসপেশিগুলো বাঁকানোর প্রয়োজন পড়ে। কিন্তু চোখের আশপাশের মাংসপেশিগুলোই (অরবিকুলারিস ওকুলি) সব পার্থক্য গড়ে দেয়। আসল হাসির সময় এই মাংসপেশিগুলো বাঁকা হয়। তখন চোখের পাশের ত্বক অনেকটা কুঁচকে যায়। এটাই সত্যিকারের সুখী মানুষের হাসি। আর মেকি বা নকল হাসির ক্ষেত্রে অরবিকুলারিসআরও পড়ুন