শুক্রবার, মে ২৭, ২০২২ || ১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম :
সাবেক নাম্বার ওয়ান প্লিসকোভাকে হারাল ২২৭-এ থাকা জিনজিয়ান সেভিয়া ছেড়ে অ্যাস্টন ভিলার পথে কার্লোস ইউক্রেনের দ্বিতীয় বড় শহর খারকিভে তীব্র লড়াই ইরাকি পার্লামেন্টে আইন পাস: ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন নিষিদ্ধ নিষেধাজ্ঞা তুলে নিলে খাদ্য সংকট এড়াতে অবদান রাখব: পুতিন পার্টিগেট কেলেঙ্কারি: অকপটে দায় স্বীকার করে ক্ষমা চাইলেন জনসন স্বাভাবিক জীবনে ফিরছিলেন বাসিন্দারা, আবার রুশ হামলায় বিপর্যস্ত খারকিভ ইমরান খানকে প্রধান আসামি করে ইসলামাবাদ পুলিশের মামলা ম্যারাডোনার স্মৃতি নিয়ে উড়ন্ত জাদুঘর সুগার রোগীদের জন্য ম্যাজিক এই ফল, এর পাতা-ডাঁটা-মূলও রক্তের শর্করা দ্রুত কমাতে পারে!
সিলেটে মুহিতের মরদেহ, দুপুরে দাফন

সিলেটে মুহিতের মরদেহ, দুপুরে দাফন


গত মার্চ মাসে নিজ জন্মস্থান সিলেটে গিয়েছিলেন সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। তখন তিনি শৈশবের স্মৃতিচারণ করেছিলেন। সিলেট এবং সিলেটের মানুষকে তিনি কতটুকু ভালোবাসেন তাও বলেছিলেন। আকাঙ্ক্ষা প্রকাশ করেছিলেন নিজের জন্মস্থানে আবারও যাওয়ার। তিনি সিলেটে গেলেন ঠিকই। তবে নিথর হয়ে। তার এমন ফেরা দেখে অনেকে কান্নায় ভেঙে পড়েন।

শনিবার (৩০ এপ্রিল) রাত ১০টার দিকে সিলেটে এসে পৌঁছায় আবুল মাল আবদুল মুহিতের মরদেহবাহী অ্যাম্বুলেন্স। তাকে নেওয়া হয় নগরের ধোপাদিঘীরপাড় এলাকার বাসভবন হাফিজ কমপ্লেক্সে।

আবুল মাল আবদুল মুহিতের মরদেহ যাওয়ার আগেই সেখানে দলীয় নেতাকর্মীসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার হাজারো শোকার্ত মানুষ জড়ো হন। মরদেহ যাওয়ার পরই সেখানে এক শোকাবহ পরিবেশ তৈরি হয়।

রাতে হাফিজ কমপ্লেক্সেই রাখ হয়েছে এই ভাষা সংগ্রামীর মরদেহ। রোববার দুপুর ১২টায় তার মরদেহ মানুষের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে নেওয়া হবে। দেড়টা পর্যন্ত শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে থাকবে মরদেহ। এরপর দুপুর ২টায় জানাজা হবে সিলেট আলিয়া মাদরাসা মাঠে। জানাজা শেষে নগরের রায়নগরস্থ পারিবারিক গোরস্থানে মা-বাবার পাশে চিরনিদ্রায় শায়িত হবেন তিনি।

এদিকে শনিবার রাতে সিলেটের আলিয়া মাদরাসা মাঠ পরিদর্শন করেন প্রয়াত আবুল মাল আবদুল মুহিতের ছোট ভাই পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন।

শুক্রবার (২৯ এপ্রিল) দিনগত রাত ১২টা ৫৬ মিনিটে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান মুহিত। বর্ষীয়ান এ রাজনীতিকের বয়স হয়েছিল ৮৮ বছর।

১৯৩৪ সালে সিলেটের এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন মুহিত। তৎকালীন সিলেট জেলা মুসলিম লীগের নেতা আবু আহমদ আবদুল হাফিজের দ্বিতীয় ছেলে তিনি। তার মা সৈয়দ শাহার বানু চৌধুরীও রাজনীতিতে সক্রিয় ছিলেন।

এসবি/ 



শেয়ার

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  
© ২০২২ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত লাইট অফ টাইমস
Design & Developed By Eng.Md.Abu Sayed