শুক্রবার, মে ২৭, ২০২২ || ১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম :
সাবেক নাম্বার ওয়ান প্লিসকোভাকে হারাল ২২৭-এ থাকা জিনজিয়ান সেভিয়া ছেড়ে অ্যাস্টন ভিলার পথে কার্লোস ইউক্রেনের দ্বিতীয় বড় শহর খারকিভে তীব্র লড়াই ইরাকি পার্লামেন্টে আইন পাস: ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন নিষিদ্ধ নিষেধাজ্ঞা তুলে নিলে খাদ্য সংকট এড়াতে অবদান রাখব: পুতিন পার্টিগেট কেলেঙ্কারি: অকপটে দায় স্বীকার করে ক্ষমা চাইলেন জনসন স্বাভাবিক জীবনে ফিরছিলেন বাসিন্দারা, আবার রুশ হামলায় বিপর্যস্ত খারকিভ ইমরান খানকে প্রধান আসামি করে ইসলামাবাদ পুলিশের মামলা ম্যারাডোনার স্মৃতি নিয়ে উড়ন্ত জাদুঘর সুগার রোগীদের জন্য ম্যাজিক এই ফল, এর পাতা-ডাঁটা-মূলও রক্তের শর্করা দ্রুত কমাতে পারে!
রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে সহায়তার আশ্বাস থাইল্যান্ডের

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে সহায়তার আশ্বাস থাইল্যান্ডের


থাইল্যান্ডের উপ-প্রধানমন্ত্রী ডন প্রমুদউইনাই বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের দ্রুত, নিরাপদ এবং মর্যাদাপূর্ণ প্রত্যাবর্তন নিশ্চিত করতে বাংলাদেশকে সম্ভাব্য সব ধরনের সহায়তা প্রদানের আশ্বাস দিয়েছেন।

বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন মিয়ানমারের সাথে ব্যাংককের ‘বন্ধুত্ব ও প্রভাব’ কাজে লাগানোর জন্য থাইল্যান্ডের পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রমুদউইনাইকে অনুরোধ করার প্রেক্ষিতে তিনি এই আশ্বাস দিয়েছেন।

আজ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, মঙ্গলবার ব্যাংককে তার সঙ্গে সাক্ষাৎকালে মাসুদ এ আহ্বান জানান।

সাক্ষাতকালে, তারা উভয়ই দ্বিপাক্ষিক সম্পকের্র ৫০ বছর উপলক্ষ্যে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা বিনিময় করেন এবং দুটি বন্ধুত্বপূর্ণ দেশের জনগণের পারস্পরিক কল্যাণে বিদ্যমান চমৎকার সম্পর্ককে আরও জোরদার করার ওপর জোর দেন।

এর আগে একই দিনে বাংলাদেশ ও থাইল্যান্ডের মধ্যে ফরেন অফিস কনসালটেশনের (এফওসি) দ্বিতীয় দফা আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়।

বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব এবং তার থাই প্রতিপক্ষ থানি থংফাকদি আলোচনায় নিজ নিজ দেশের পক্ষে নেতৃত্ব দেন যেখানে দুই দেশের মধ্যকার দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের সকল বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হয়।

উভয় পক্ষই ‘কৌশলগত অর্থনৈতিক অংশীদারিত্ব’ গঠনের জন্য বাংলাদেশ ও থাইল্যান্ডের মধ্যে একটি মুক্ত বাণিজ্য চুক্তির (এফটিএ) সম্ভাবনার উপর একটি যৌথ সম্ভাব্যতা যাচাই করার ওপর জোর দিয়েছে।

এসময় বাংলাদেশ পক্ষ রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া ত্বরান্বিত করার জন্য ফলপ্রসূ উপায়ে আসিয়ান প্রক্রিয়ার কার্যকর সম্পৃক্ততার মাধ্যমে অগ্রসর করার জন্য থাইল্যান্ডের প্রতি তাদের প্রভাব ব্যবহার করার তাগিদ পুনর্ব্যক্ত করেছে।

বাংলাদেশের পক্ষ আরো বলেছে যে, প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়ায় আসিয়ানের সম্পৃক্ততা নিঃসন্দেহে রোহিঙ্গাদের নিরাপত্তার আশ্বাস দেবে যা তাদের নিজ ভূখণ্ড রাখাইনে স্বেচ্ছায় ফিরে যেতে উৎসাহিত করতে পারে।

উভয় পক্ষ সংশ্লিষ্ট দেশে বায়ো-সার্কুলার গ্রিন ইকোনমিক মডেল এবং মুজিব জলবায়ু সমৃদ্ধি পরিকল্পনা যথাযথভাবে বাস্তবায়নের মাধ্যমে একটি টেকসই এবং অন্তর্ভুক্তিমূলক অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধার এবং উন্নয়নের জন্য আরও সমন্বয় ঘটাতে সম্মত হয়েছে।

এসি

 



শেয়ার

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  
© ২০২২ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত লাইট অফ টাইমস
Design & Developed By Eng.Md.Abu Sayed