শুক্রবার, মে ২৭, ২০২২ || ১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম :
সাবেক নাম্বার ওয়ান প্লিসকোভাকে হারাল ২২৭-এ থাকা জিনজিয়ান সেভিয়া ছেড়ে অ্যাস্টন ভিলার পথে কার্লোস ইউক্রেনের দ্বিতীয় বড় শহর খারকিভে তীব্র লড়াই ইরাকি পার্লামেন্টে আইন পাস: ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন নিষিদ্ধ নিষেধাজ্ঞা তুলে নিলে খাদ্য সংকট এড়াতে অবদান রাখব: পুতিন পার্টিগেট কেলেঙ্কারি: অকপটে দায় স্বীকার করে ক্ষমা চাইলেন জনসন স্বাভাবিক জীবনে ফিরছিলেন বাসিন্দারা, আবার রুশ হামলায় বিপর্যস্ত খারকিভ ইমরান খানকে প্রধান আসামি করে ইসলামাবাদ পুলিশের মামলা ম্যারাডোনার স্মৃতি নিয়ে উড়ন্ত জাদুঘর সুগার রোগীদের জন্য ম্যাজিক এই ফল, এর পাতা-ডাঁটা-মূলও রক্তের শর্করা দ্রুত কমাতে পারে!
নিষেধাজ্ঞা তুলে নিলে খাদ্য সংকট এড়াতে অবদান রাখব: পুতিন

নিষেধাজ্ঞা তুলে নিলে খাদ্য সংকট এড়াতে অবদান রাখব: পুতিন

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, পশ্চিমারা যদি তার দেশের ওপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়, তাহলে বিশ্বব্যাপী খাদ্য সংকট এড়াতে মস্কো উল্লেখযোগ্য অবদান রাখতে প্রস্তুত। ইতালির প্রধানমন্ত্রী মারিও দ্রাঘির সঙ্গে এক ফোনালাপে এ কথা বলেন তিনি।

ইতালির প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ফোনালাপের পর ক্রেমলিনের পক্ষ থেকে একটি বিবৃতি প্রকাশ করা হয়। তাতে বলা হয়, ইউক্রেনের পক্ষ থেকে আজভ ও কৃষ্ণ সাগরে জাহাজ চলাচলে বাধা সৃষ্টি করা হচ্ছে। আলাপে পুতিন আজভ ও কৃষ্ণ সাগরে বেসামরিক জাহাজ চলাচলের নিরাপত্তার নিশ্চয়তায় গৃহীত পদক্ষেপের কথা বলেন।

যেকোনো যুদ্ধে যুদ্ধরত অঞ্চলের খাদ্য নিরাপত্তাকে বিঘ্নিত করে। তবে ইউক্রেন যুদ্ধে জড়িত দুই দেশ রাশিয়া ও ইউক্রেন বিশ্বের অন্যতম প্রধান গম ও ভোজ্যতেলের উপাদান রপ্তানিকারক দেশ হওয়ার কারণে এই যুদ্ধ গোটা বিশ্বের খাদ্য নিরাপত্তাকে বিপদাপন্ন করেছে।

রাশিয়া ও ইউক্রেন উভয় দেশে গম আহরণের মৌসুম ঘনিয়ে এসেছে

বিশ্বের ৫০টির বেশি দেশ গমের জন্য রাশিয়া ও ইউক্রেনের ওপর নির্ভরশীল এবং এই খাদ্যশষ্যটি বিশ্বের এক পঞ্চমাংশ ক্যালরি ও প্রোটিনের চাহিদা মেটায়। গমের অপ্রতুলতা ও এই শষ্যের দাম বৃদ্ধির ফলে বিশ্বব্যাপী সব ধরনের রুটি ও নুডুলসের মতো খাদ্যপণ্যের দাম বেড়ে যায়।গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে রাশিয়ার বিশেষ সামরিক অভিযান শুরু হওয়ার পর এরইমধ্যে গম, আটা ও এসব থেকে তৈরি সব খাদ্যপণ্যের দাম বেড়ে গেছে।

রাশিয়া বিশ্বের প্রধান গম রপ্তানিকারক দেশ এবং এই তালিকায় ইউক্রেনের অবস্থান পঞ্চম।দু’টি দেশেরই নতুন খাদ্যশস্য আহরণের মৌসুম চলে এসেছে। এ অবস্থায় যুদ্ধ অব্যাহত থাকলে এবং রাশিয়ার ওপর পশ্চিমা নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকলে এসব খাদ্যশস্য আন্তর্জাতিক বাজারে পৌঁছাতে পারবে না। ফলে গোটা বিশ্ব খাদ্য সংকটে পড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।#

পার্সটুডে/এমএমআই/২৭

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।

শেয়ার

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  
© ২০২২ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত লাইট অফ টাইমস
Design & Developed By Eng.Md.Abu Sayed