Main Menu

নারী শিক্ষায় তালেবানের পদক্ষেপ হতাশাজনক: কাতার


ছবি: সংগৃহীত।

কাতারের শীর্ষ এক কূটনীতিক বলেছেন, আফগানিস্তানে মেয়েদের শিক্ষার ব্যাপারে তালেবানের নেয়া পদক্ষেপ ‘অত্যন্ত হতাশাজনক’ ও ‘একধাপ পেছানো।’ একই সাথে ইসলামি শাসনব্যবস্থা কীভাবে পরিচালনা করতে হয় সেটা জানতে তালেবান নেতাদের দোহার দিকে নজর দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

আলজাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়, বৃহস্পতিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) দোহায় ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্রনীতিবিষয়ক প্রধান জোসেপ বোরেলকে সাথে নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে কথা বলেছেন কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ বিন আব্দুলরহমান আল থানি। তিনি বলেন, ‘সম্প্রতি আফগানিস্তানে আমরা দুর্ভাগ্যজনক কিছু পদক্ষেপ দেখেছি। পেছনের দিকে নিয়ে যাওয়ার জন্য কিছু পদক্ষেপ অত্যন্ত হতাশাজনক।’

দেশের ক্ষমতা দখলের কয়েক সপ্তাহ পর তালেবানের আফগান নারীদের মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের পড়াশোনা পুনরায় শুরু করার অনুমতি দিতে অস্বীকৃতি জানানোসহ আফগানিস্তানের অন্যান্য বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা বলেছেন কাতারের এই পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

আল থানি বলেন, তালেবানের সাথে আমাদের সংশ্লিষ্ট থাকা জরুরি এবং তাদেরকে এ ধরনের পদক্ষেপ না নেয়ার আহ্বান জানাচ্ছি। মুসলিম দেশগুলো কীভাবে আইনের বাস্তবায়ন করছে এবং নারীদের বিষয়গুলো কীভাবে মোকাবিলা করছে আমাদের তা তালেবানকে দেখানোর চেষ্টা করতে হবে। 

‌‘এর অন্যতম এক উদাহরণ কাতার, যেটি মুসলিম দেশ। আমাদের শাসনব্যবস্থা ইসলামিক। কিন্তু আমাদের কর্মক্ষেত্রে, সরকারে এবং উচ্চশিক্ষায় পুরুষের চেয়ে নারীর সংখ্যা বেশি।’








Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: