শুক্রবার, মে ২৭, ২০২২ || ১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম :
সাবেক নাম্বার ওয়ান প্লিসকোভাকে হারাল ২২৭-এ থাকা জিনজিয়ান সেভিয়া ছেড়ে অ্যাস্টন ভিলার পথে কার্লোস ইউক্রেনের দ্বিতীয় বড় শহর খারকিভে তীব্র লড়াই ইরাকি পার্লামেন্টে আইন পাস: ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন নিষিদ্ধ নিষেধাজ্ঞা তুলে নিলে খাদ্য সংকট এড়াতে অবদান রাখব: পুতিন পার্টিগেট কেলেঙ্কারি: অকপটে দায় স্বীকার করে ক্ষমা চাইলেন জনসন স্বাভাবিক জীবনে ফিরছিলেন বাসিন্দারা, আবার রুশ হামলায় বিপর্যস্ত খারকিভ ইমরান খানকে প্রধান আসামি করে ইসলামাবাদ পুলিশের মামলা ম্যারাডোনার স্মৃতি নিয়ে উড়ন্ত জাদুঘর সুগার রোগীদের জন্য ম্যাজিক এই ফল, এর পাতা-ডাঁটা-মূলও রক্তের শর্করা দ্রুত কমাতে পারে!
অবাধ ও সুষ্ঠ নির্বাচন অনুষ্ঠান: বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানু্ষের সঙ্গে সিইসির সংলাপ শুরু

অবাধ ও সুষ্ঠ নির্বাচন অনুষ্ঠান: বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানু্ষের সঙ্গে সিইসির সংলাপ শুরু

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কিভাবে সুষ্ঠ, অংশগ্রহণমুলক এবং সবার জন্য গ্রহণযোগ্য করা যাবে তা নিয়ে মতামত সংগ্রহের জন্য নতুন নির্বাচন কমিশন (ইসি) বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানু্ষদের সাথে সংলাপ শুরু করেছে।

রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে শিক্ষাবিদদের সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে গতকাল রোববার এ সংলাপ শুরু হয়েছে।

প্রথম দিনের সংলাপে দেশের ৩০ জন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিল ইসি। তবে অংশ নিয়েছেন ১৩ জন শিক্ষক। ইমেরিটাস অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের সভাপতি অধ্যাপক আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক, অধ্যাপক সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম, অধ্যাপক আসিফ নজরুলসহ ১৭ জন সংলাপে অংশ নেননি। তাঁদের মধ্যে কেউ কেউ শারীরিক অসুস্থতা ও ব্যক্তিগত কাজ থাকায় অংশ নিতে পারবেন না বলে ইসিকে জানিয়েছিলেন।

সংলাপে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেছেন, রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে সমঝোতা ও একটি অনুকূল পরিবেশ সৃষ্টি না হলে সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন করা দুরূহ হয়ে পড়বে। বড় দল নির্বাচন থেকে দূরে থাকলে অংশগ্রহণমূলক ও অন্তর্ভুক্তিমূলক নির্বাচনে কিছুটা ভাটা পড়তে পারে। সংলাপে অংশগ্রহণকারী শিক্ষাবিদেরা বলেছেন, সব দলের অংশগ্রহণে একটি সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য জাতীয় সংসদ নির্বাচন জরুরি। এ জন্য নির্বাচন কমিশনকে রাজনৈতিক দলগুলোর আস্থা অর্জন এবং অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ সৃষ্টি করতে উদ্যোগী হওয়ার পরামর্শ দেন তাঁরা।

শিক্ষাবিদদের কেউ কেউ আবার বলেছেন, দলীয় সরকারের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়। নির্বাচনকালে একটি নিরপেক্ষ সরকার প্রয়োজন। এ জন্য রাজনৈতিক সমঝোতা জরুরি।

নির্বাচন কমিশনের প্রথম সংলাপ অনুষ্ঠানে শিক্ষাবিদেরা নির্বাচনের তিন মাস আগে থেকে প্রশাসন ও পুলিশকে ইসির অধীনে আনা, সবার জন্য সমান সুযোগ নিশ্চিত করা, ভোটারদের সচেতন করা, বিরোধী দলগুলোকে বারবার আমন্ত্রণ জানানো, ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহারের বিষয়ে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া এবং ইসির নিজস্ব কর্মকর্তাদের রিটার্নিং কর্মকর্তার দায়িত্ব দেওয়াসহ বিভিন্ন পরামর্শ দিয়েছেন।

দলীয় সরকারের অধীনে ভালো নির্বাচন করা সম্ভব নয় বলে মত দেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক মুহাম্মদ ইয়াহ্‌ইয়া আখতার। এই নির্বাচন কমিশন গঠনের প্রক্রিয়া নিয়েও তিনি প্রশ্ন তোলেন। বলেন, অনুসন্ধান কমিটি ১০ থেকে ২০ জনের নাম প্রকাশ করলে ভালো হতো। এখন যেভাবে কমিশন হয়েছে তা লুকোচুরি, ছলচাতুরী, দুরভিসন্ধিমূলক প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে এসেছে – এরকম বলার মতো কারণ আছে। এ বিষয়ে  আগামী ২২ মার্চ নাগরিক সমাজের  প্রতিনিধিদের সাথে মত বিনিময় করবে নির্বাচন কমিশন। ##

পার্সটুডে/আবদুর রহমান খান/ বাবুল আখতার/১৪

বিশ্বসংবাদসহ গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন। 

 

 

শেয়ার

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  
© ২০২২ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত লাইট অফ টাইমস
Design & Developed By Eng.Md.Abu Sayed